বৃহস্পতিবার ২৩ নভেম্বর ২০১৭


শান্ত,ি সহনশীলতায় ইসলাম


আমাদের অর্থনীতি :
10.03.2017

 

রুহুল আমনি ভূঁইয়া

মুসলমি হসিবেে র্ধম পালন এবং তার সঠকি বাস্তবায়নরে জন্য চষ্টো সাধনা করার বষিয়ে কোন দ্বমিত থাকতে পারে না। এই চষ্টো সাধনার পদ্ধতি সবার ক্ষত্রেে সব সময় একই রকম নাও হতে পার।ে তবে সব ক্ষত্রেইে কছিু মৌল নীতি অবশ্যই মনেে চলার প্রয়োজন রয়ছে।ে মুসলমি মাত্রই মহান আল্লাহ তায়ালার প্ররেতি কতিাব আল-কোরআনরে বাণী অনুধানরে জন্য অবশ্যই সাধ্যমত চষ্টো করতে হব।ে

ইসলামরে একটি গুরুত্বর্পূণ বধিান জহোদ। জহোদ ব্যক্তস্বর্িাথ সংশ্লষ্টি বষিয় নয়, মানবতার র্স্বাথে ও শান্তি প্রতষ্ঠিার লক্ষ্যকে সামনে রখেইে সময় উপযোগী পদক্ষপে নয়ো হলো জহোদ। কোন অহংকারী, বঈেমান, জ্ঞানপাপী কংিবা দাম্ভকি র্ধমান্ধ র্মূখ নয়, বরং প্রাজ্ঞ, বচিক্ষণ ও বোধসম্পন্ন মুসলমিদরে পক্ষইে ইসলামি জহিাদরে প্রকৃত র্মম অনুধাবন করা সম্ভব। শুধুমাত্র র্পাথবি লাভ লোকসানরে হসিবে কষে জহিাদরে মুখ্য উদ্দশ্যে হৃদয়ঙ্গম করা সম্ভব নয়। যারা সত্যকিার র্অথে ইসলামরে পথে চষ্টো সাধনা করতে চান, তাদরে অত্যন্ত ধর্যৈশীল হতে হব।ে তাড়াহুড়া করা কংিবা অধর্যৈ হয়ে কথায় ও র্কমে আবগে প্রসূত অসহনশীল আচরণ করা থকেে অবশ্যই বরিত থাকতে হব।ে কারণ রুঢ় কথা ও অসহষ্ণিু আচরণ সাধারণ জনগণরে সাথে দূরত্ব সৃষ্টি কর।ে ইসলাম শান্তরি র্ধম, আর মুসলমিরা হলো শান্তরি দূত স্বরূপ। তাই তাদরে র্মাজতি ও সৎ স্বভাবরে অধকিারী হবার জন্য চষ্টো করতে হব।ে কারণ মহান স্রষ্টা বনিয়ী, সহষ্ণিু ও সৎর্কমশীল ভাল মানুষদরে ভালবাসনে এবং সাথে থাকনে। তাছাড়া সাধারন মানুষই শুধু নয়, চরম শত্রুরাও ভাল মানুষরে ব্যবহারে মুগ্ধ হয়, বশ্বিাস ও আস্থা পায় এবং বন্ধু হসিবেে গ্রহণ করতে পার।ে সব সময় মনে রাখতে হবে য,ে মহান আল্লাহ তায়ালা আমাদরে শান্তি ও সত্যাশ্রয়ী কল্যাণময় সমাজ প্রতষ্ঠিার জন্যই এ পৃথবিীতে পাঠয়িছেনে। যথাসম্ভব শান্তপর্িূণ ও সহনশীল পথইে এই গুরু দায়ত্বি পালন করতে হব।ে কন্তিু তাই বলে সহনশীলতার র্অথ এই নয় যে নজিদেরে অস্তত্বি বপিন্ন হওয়ার আশঙ্কা দখো দলিওে মুসলমিরা হাত গুটয়িে বসে থাকব।ে ক্ষমতা দখলরে মোহে তথাকথতি সন্ত্রাস নয়, বরং দুষ্টরে দমন ও শষ্টিরে পালনরে র্স্বাথে শক্তি প্রর্দশন এবং মুসলমিদরে আত্মরক্ষার প্রয়োজনে হাতে অস্ত্র তুলে নয়িে তার সদ্ব্যবহার করার নর্দিশেও দয়ো হয়ছে।ে সাধ্যমত ইসলামরে দাওয়াত দয়োও ‘জহিাদরে’ একটি অতীব গুরুত্বর্পূণ অংশ। ভাল কথা, সৎর্কম, সারর্গভ বক্তৃতা ও লখোলখেি ইত্যাদি সকল উত্তম পন্থায় দাওয়াতরে কাজ চালয়িে যতেে হবে এবং যুগোপযোগী আধুনকি গণমাধ্যমসমূহরে সুষ্ঠু ব্যবহার করার বষিয়ওে যথাযথ পদক্ষপে নতিে হব।ে চকিৎিসা বজ্ঞিান, সমাজ বজ্ঞিান, প্রকৌশল বজ্ঞিান, র্অথনীত,ি আইন শাস্ত্র, মহাকাশ বজ্ঞিান, বর্বিতনবাদ ইত্যাদি যত ধরনরে র্পাথবি বশিষে জ্ঞানই মানুষ র্অজন করুক না কনে, ইসলামরে দাওয়াত র্কমে নবিদেতিদরে আল-কোরআনরে জ্ঞান র্অজন ও অনুধাবন করার বষিয়ে র্সবাধকি গুরুত্ব দতিে হব।ে তা না হলে যে কোন মুর্হূতে পা পছিলে যাওয়ার সম্ভাবনাই অধকি।

এই দাওয়াতরে কাজ করতে গয়িে অনকে কটুকথা এবং নানা রকমরে পীড়নমূলক আচরণরে সম্মুখীন হতে হব।ে অনুকুল বা প্রতকিুল র্অথাৎ পরবিশে ও পরস্থিতিি যমেনই হোক না কনে, সকল অবস্থায় মহান আল্লাহ তায়ালার পথ নর্দিশেনা মনেে চলাই হলো মুসলমিদরে জন্য র্সবােত্তম পন্থা।