সোমবার ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭


‘২০২১ সালে বাংলাদেশের রপ্তানি আয় দাঁড়াবে ৬০ বিলিয়ন ডলার’


আমাদের অর্থনীতি :
07.12.2017

জাফর আহমদ: স্বাধীনতার ৫০ বছরে (২০২১ সালে) বাংলাদেশে রফতানি আয় ৬০ বিলিয়ন ডলারে পৌছবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। তিনি বলেন, ১৯৭২-৭৩ অর্থবছরে রফতানি আয় ছিল ৩৪৮ দশমিক ৪২ মিলিয়ন ডলার। সে সময় মাত্র ২৫টি পণ্য রফতানি হতো। আজ সেই বাংলাদেশ সাড়ে সাত শত পণ্য ও সেবা বিশে^র বিভিন্ন দেশে রফতানি করে আয় করছে ৩৮ দশমিক ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। গতকাল ঢাকার গুলশানের একটি হোটেলে এফবিসিসিআই আয়োজিত বাংলাদেশে সফররত সৌদি আরবের উচ্চ পর্যায়ের ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দলের সাথে বিজনেস মিটিং-এ প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু ২টি স্বপ্নের কথা বলেছিলেন। তার একটি হলো বাঙ্গালী জাতির মুক্তি অপরটি হলো, বাঙালী জাতির অর্থনৈতিক মুক্তি অর্থাৎ বাংলাদেশকে সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তোলা। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ স্বাধীন করে গেছেন। আজ তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য সফল ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি বলেন, একসময় বাংলাদেশের জাতীয় বাজেট ছিল ৯০ভাগ বৈদেশীক সাহায্যের উপর নির্ভরশীল। আজ নিজস্ব অর্থেই বৃহৎ বাজেট ঘোষণা করা হয়। নিজস্ব অর্থে বড় বড় প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এক সময় যারা বাংলাদেশকে বলতো-তলাবিহীন ঝুড়ি এবং বিশে^র দরিদ্র দেশের রোল মডেল। আজ তারাই বলছে বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল।

তোফায়েল আহমেদ অতিথিদের উদ্দেশ্যে বলেন, সৌদি ব্যবসায়ীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগ করলে লাভবান হবেন। বিশে^র মধ্যে বাংলাদেশ এখন বিনিয়োগের জন্য চমৎকার স্থান। এখানে কম খরচে বিশ^মানের পণ্য উৎপাদন করা সম্ভব। তিনি বলেন, সৌদি আরবের সাথে বাংলাদেশের বাণিজ্য বৃদ্ধির প্রচুর সুযোগ রয়েছে। বর্তমানে উভয় দেশের বাণিজ্য ৮০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের মধ্যে সীমাবন্ধ। উভয় দেশের ব্যবসায়ীরা এগিয়ে এলে এ বাণিজ্য অনেক বৃদ্ধি করা সম্ভব। সম্পাদনা: তরিকুল ইসলাম সুমন