সোমবার ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭


দুদকের জিজ্ঞাসাবাদের সময় অসুস্থ বোধ করেন আবদুল হাই বাচ্চু


আমাদের অর্থনীতি :
07.12.2017

জান্নাতুল ফেরদৌস পান্না : দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) জিজ্ঞাসাবাদের সময় গতকাল অসুস্থ বোধ করেন বেসিক ব্যাংকের প্রাক্তন চেয়ারম্যান আবদুল হাই বাচ্চু। তখন দুদক কার্যালয়ের চিকিৎসক ডা. জ্যোতির্ময় চৌধুরী তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেন। দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য এ তথ্য নিশ্চিত করেন। গতকাল সকাল সাড়ে ১০টা থেকে দুদক পরিচালক জায়েদ হোসেন খান ও সৈয়দ ইকবাল হোসেনের নেতৃত্বে একটি বিশেষ টিম আবদুল হাই বাচ্চুকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। প্রায় সাড়ে ৪ হাজার কোটি টাকার ঋণ জালিয়াতির অভিযোগ তদন্তে বেসিক ব্যাংকের প্রাক্তন চেয়ারম্যানকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।
জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য জানান, তিনি হাইপারটেনশনের রোগী হওয়ায় জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে বেলা আড়াইটার দিকে অসুস্থতা অনুভব করেন। দুদকের ডাক্তার তাকে চেকআপ করেন। তবে ডাক্তারের মতে তিনি সুস্থ আছেন।
এর আগে গত ৪ ডিসেম্বর আবদুল হাই বাচ্চু নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন। ঋণ কেলেঙ্কারির এ ঘটনায় দুদকের এই জিজ্ঞাসাবাদ চলছে গত ২২ নভেম্বর থেকে। এর আগে বেসিক ব্যাংকের প্রাক্তন ১০ পরিচালককে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।
বেসিক ব্যাংক কেলেঙ্কারিতে ২০১৫ সালের ২১, ২২ ও ২৩ সেপ্টেম্বর ৩ দিনে টানা ৫৬টি মামলা করেন দুদকের অনুসন্ধান দলের সদস্যরা। রাজধানীর মতিঝিল, পল্টন ও গুলশান থানায় এসব মামলায় মোট আসামি করা হয় ১৫৬ জনকে। মামলায় ২ হাজার ৬৫ কোটি টাকা অনিয়মের মাধ্যমে ঋণ দেওয়া হয় বলে অভিযোগ আনা হয়। এর মধ্যে রাজধানীর গুলশান শাখার মাধ্যমে ১ হাজার ৩০০ কোটি টাকা, শান্তিনগর শাখায় ৩৮৭ কোটি টাকা, প্রধান শাখায় প্রায় ২৪৮ কোটি টাকা এবং দিলকুশা শাখার মাধ্যমে অনিয়ম করে ১৩০ কোটি টাকা ঋণ দেওয়া হয়। এছাড়া কেলেঙ্কারির অভিযোগের বাকি অংশের অনুসন্ধান দুদকে চলমান। সম্পাদনা : গিয়াস উদ্দিন আহমেদ