রবিবার ২২ এপ্রিল ২০১৮


নিউইয়র্ক আদালতে নিজেকে নির্দোষ দাবি করলেন আকায়েদ


আমাদের অর্থনীতি :
13.01.2018

শোভন দত্ত : নিউইয়র্কের ম্যানহাটনে বোমা হামলার অভিযোগে আটক বাংলাদেশি তরুণ আকায়েদ উল্লাহ আদালতে নিজেকে নির্দোষ দাবি করেছেন। স্থানীয় সময় গত বৃহস্পতিবার বিকালে ম্যানহাটনের এক ফেডারেল আদালতে তাকে হাজির করা হলে তখণ তিনি এ দাবি করেন।

এদিন কারাগারের নীল পোশাকে আদালতে হাজির হন আকায়েদ। দোষ স্বীকার করতে বলা হলে তিনি বলেন, এই মুহূর্তে বলছি আমি নির্দোষ।

শুনানির প্রথম দিনে আকায়েদের বক্তব্য শোনা হয়। এরপর ঘটনাকে কেন্দ্র করে ফোন রেকর্ড শোনা ও ছবি দেখা হয়। তার ল্যাপটপের তথ্যও আদালতে হাজির করা হয়।

তার আইনজীবী বারবারই অভিযোগ করছেন, তিনি পর্যাপ্ত চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত। তবে আদালত এখনও তাকে বাইরের চিকিৎসার অনুমতি দেয়নি। বোমা হামলা ও হামলার চেষ্টা ছাড়াও বেশ কিছু অভিযোগ রয়েছে আকায়েদের বিরুদ্ধে। আনা হয়েছে গণপরিবহনে অগ্নিসংযোগ বা বিস্ফোরণের অভিযোগ। একজন ফেডারেল বিচারক তার বিরুদ্ধে ৬টি অভিযোগ এনেছেন।

গত ১১ ডিসেম্বর নিউইয়র্কের ম্যানহাটনে ব্যস্ত এলাকায় বোমা বিস্ফোরণ ও হামলার চেষ্টা করেন আকায়েদ। ওই হামলায় আকায়েদসহ ৪জন আহত হয়েছিলেন। এ ঘটনায় পুলিশ তাকে আটক করে।

ফেডারেল গোয়েন্দারা দাবি করেন, ২০১৪ সালে আকায়েদ আইএস দ্বারা অনুপ্রাণিত হতে শুরু করেন। আইএস ভিডিও বার্তায় জানানো হয়, যেসব সমর্থকরা দেশ পাড়ি দিয়ে আইএস যোগ দিতে পারছেন না তারা যেন নিজ দেশেই হামলা চালায়। এই ভিডিওতে অনুপ্রাণিত আকায়েদ ইন্টারনেটে খুঁজতে শুরু করেন কীভাবে বোমা তৈরি করা যায়। পুলিশ জানিয়েছে, আকায়েদ তাদের কাছে স্বীকার করেছেন মার্কিন সরকারের মধ্যপ্রাচ্য নীতির কারণেই তিনি হামলা চালান। তার উদ্দেশ্য ছিল আতঙ্ক ছড়িয়ে দেওয়া। এজন্যই কর্মদিবসে হামলার সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

৬ বছর আগে বাংলাদেশে থেকে যুক্তরাষ্ট্রে যান আকায়েদ উল্লাহ। চাচার মাধ্যমে ভিসা পান তিনি। সূত্র : বাংলা ট্রবিউন। সম্পাদনা : সৈয়দ নূর-ই-আলম