রবিবার ২১ জানুয়ারী ২০১৮


মাওলানা সাদ দিল্লি যাননি, কাকরাইল মসজিদেই বয়ান ও ইমামতি করলেন 


আমাদের অর্থনীতি :
13.01.2018

মাসুদ আলম : দিল্লির  নিজামুদ্দিন মারকাজের মুরব্বি মাওলানা সাদ কান্ধলভী রাজধানীর কাকরাইল মারকাজ মসজিদে জুমার নামাজের ইমামতি করেছেন। নামাজের আগে তিনি   বয়ান করেছেন। বয়ানে আশপাশের অনেক তাবলিগ জামাতের মুসল্লিরা  উপস্থিত ছিলেন। সকাল থেকে তাবলিগ জামাতের একাংশ সাদ অনুসারিরা মসজিদে অবস্থান নেয়। গতকাল তার দিল্লি ফিরে যাওয়ার কথা থাকলেও তিনি যাননি। তবে একটি সূত্র জানিয়েছে আজ শনিবার  তার দিল্লিতে ফিরে যাওয়ার কথা রয়েছে। এদিকে কাকরাইল মসজিদকে ঘিরে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে  আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। যাতে  কোনো ধরনের  অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য  মসজিদের আসার সকল প্রবেশ পথে ছিলো পোশাকে ও সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। মসজিদে আসা সন্দেহভাজন অনেককে তল্লাশি করতে দেখা গেছে।

তাবলিগের সাথী মাওলানা ওসামা বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অনুমতি নিয়েই মাওলানা সাদ কাকরাইলে বয়ান করছেন। এজন্য অনেকেই কাকরাইল মসজিদে এসেছেন। আপাতত সাদ ও তার সঙ্গে আসা মেহমানরা কাকরাইলে থাকছেন।

তাবলিগ জামাতের এক সাথী বলেন, মাওলানা সাদকে বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নিতে দেওয়া হয়নি,সেহেতু তিনি দেশে ফিরে যাবেন। ধারণা করা হচ্ছে শনিবার  দেশে ফিরে যাবেন। সাদের সঙ্গে আসা কেউই ্ ইজতেমায় অংশ নিবেন না। শনিবার রাতে তাবলিগ জামাতের একাংশের সঙ্গে বৈঠক করবেন সাদ।

পুলিশের রমনা বিভাগের ডিসি মারুফ হোসেন সরদার বলেন, দিল্লিতে  ফিরে না যাওয়া পর্যন্ত কাকরাইলে থাকবেন সাদ। যাতে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য নিরাপত্তা জোরধার করা হয়েছে। এছাড়া আশপাশের এলাকায় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ও ভিভিআইপিদের বসবাস রয়েছে। আমাদের কাজ নিরাপত্তা দেওয়া,নিরাপত্তা দিচ্ছি।  সাদ কতদিন এখানে থাকবে জানা নেই।  সম্পাদনা: বিশ্বজিৎ দত্ত