সোমবার ২৫ জুন ২০১৮


প্রাইভেট গাড়ির কারণে রাস্তার সক্ষমতা হারাচ্ছি


আমাদের অর্থনীতি :
14.03.2018

 

ইকবাল হাবিব

 

আমাদের দেশে প্রাইভেট যানবাহন যেভাবে ব্যাপকহারে বাড়ছে তাতে আমাদের আগামীতে রাস্তায় চলাচল করা খুবই কষ্টকর হয়ে পড়বে। কারণ, আমাদের দেশে নতুনভাবে চালু হয়েছে উবার, পাঠাও সহ বেশ কিছু কোম্পানী। যার মাধ্যমে যার গাড়ি নেই সেও গাড়িতে চলে, যার গাড়ি আছে সেও গাড়িতে চলে। ফলে দেখা যায়, যে গাড়িটি আগে দিনে দুই বার রাস্তায় নামতো, সে গাড়িটি এখন দিনে দশ থেকে বিশ বার রাস্তায় নামছে। ফলে রাস্তার পুরো দখল এখন চলে গেছে প্রাইভেট কার নামক যানে। সেই প্রাইভেট কারগুলোতে আবার কখনই দুই একজনের বেশি লোক চলছে না। আমাদের দেশের গণপরিবহণ ব্যবহার করে আমরা যে ফায়দা পেতাম, তা এখন আমরা বেমালুম ভেস্তে দিতে চলেছি। এই কারণে আমরা মনে করছি যে, গত সাত আট মাসে যে গতি সীমা হারালাম তার অন্যতম প্রধান কারণ এই লাভজনক ব্যবস্থা। এটি থাকার কারণে অনেকে এখন হোন্ডা এবং গাড়ি কিনে উবার ও পাঠাও সহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানগুলোতে বিনিয়োগ করছে। যেখানে সরকারের উচিত ছিল এই বিনিয়োগটি নিয়ন্ত্রণ করে জনগণকে বাসের মধ্যে মনোনিবেশ করানো। সেকারণে আমরা মনে করি, সড়কের অপব্যবহার করার মধ্য দিয়ে আমরা আমাদের যানজটকে আরো বেশি মাত্রায় বৃদ্ধি করলাম। সাথে সাথে নিয়ন্ত্রনহীন প্রাইভেট গাড়ি বৃদ্ধি হতে আমরা আরো বেশি সহায়তা করছি। কারণ, আমরা এখন দেখছি দিন দিন ফ্লাইওভার নির্মাণের প্রতি একটি মহলের বেশ ঝোঁক রয়েছে। এগুলোতে প্রাইভেট গাড়িকে সুবিধা দেয়, কোন গণ পরিবহণ বাসকে দেয় না। বাসতো আর ফ্লাইওভারের উপর থেকে যাত্রি উঠাতে পারে না, সেকারণে সে ফ্লাইওভারে উঠতে অনিহা প্রকাশ করে। এই কারণেই আমরা দেখছি আমরা আমাদের রাস্তার সক্ষমতা হারাচ্ছি।

পরিচিতি : স্থপতি/ মতামত গ্রহণ : শাখাওয়াত উল্লাহ/ সম্পাদনা: মোহাম্মদ আবদুল অদুদ