সোমবার ২৫ জুন ২০১৮


ট্রাম্পের টাকা ফেরত দিতে চান স্টর্মি ড্যানিয়েলস


আমাদের অর্থনীতি :
14.03.2018

আব্দুর রাজ্জাক : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে তার ব্যাপারে মুখ বন্ধ রাখতে প্রদত্ত অর্থ ফেরত দিতে চান যুক্তরাষ্ট্রের পর্নো তারকা স্টর্মি ড্যানিয়েলস। তিনি তার কথা বলার স্বাধীনতা অর্জনের জন্য প্রায় ১ লাখ ৩০হাজার মার্কিন ডলার ট্রাম্পকে ফেরত দেবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্টর্মি। দ্য ইনডিপেন্ডেন্ট।
একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন তৈরির প্রেক্ষিতে যুক্তরাষ্ট্রের জনগণকে সত্য ঘটনা জানানোর জন্য তিনি এমন একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন স্টিফেন ক্লিফর্ড যাকে সবাই স্টর্মি ড্যানিয়েলস নামে জানে।
গত সোমবার ট্রাম্পের কাউন্সিল বরাবর পাঠানো এক চিঠিতে স্টর্মির অ্যাটর্র্নি মাইকেল অ্যাভেনটি লেখেন, তিনি সত্য বলার অধিকার ফিরে পেতে টাকাগুলো ফেরত দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। স্টর্মিকে টাকাগুলো ট্রাম্পের ব্যক্তিগত আইনজীবী মাইকেল কোহেনের মাধ্যমে দেওয়া হয়েছিল বলে জানিয়েছেন অ্যাভেনটি।
স্টর্মি ট্রাম্পের অধীনে থাকাবস্থায় পারস্পরিক সম্পর্কের ছবি, ভিডিও, মেসেজ ব্যবহার ও প্রচার করার অধিকারও চান। তিনি তথ্যগুলো কোন প্রকার ভীতি, সম্মান ও দায়বদ্ধতার উর্ধ্বে থেকে প্রচারের অধিকার চান বলেও নিশ্চিত করেন তার অ্যাটর্নি।
উল্লেখ্য, ২০০৬ সালে ট্রাম্পের স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্পের অসুস্থতার সময় ট্রাম্পের সাথে প্রথম যৌন সম্পর্ক স্থাপিত হয় যা ২০০৭ সাল পর্যন্ত ভালোভাবে স্থায়ী হয় বলে জানিয়েছে স্টর্মি। পরে ট্রাম্প তার নির্বাচনের প্রচারণায় ক্ষতির আশঙ্কায় মুখ বন্ধ করার জন্য স্টর্মিকে প্রায় ১৩০,০০০ মার্কিন ডলার প্রদান করে। যদিও তার সাথে কোন রকম সম্পর্কের কথা অস্বীকার করেছেন ট্রাম্প। সম্পাদনা : আনিস রহমান