বুধবার ২৩ মে ২০১৮


জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতার সমাপনী অনুষ্ঠিত


আমাদের অর্থনীতি :
17.05.2018

 

 

 

শিশুদের আনন্দ বড়দের মনকেও ছুঁয়ে যায়। আজ সেই আনন্দের দিন। বাংলাদেশ শিশু একাডেমীর উদ্যোগে শিশুদের প্রতিভা অন্বেষণে দেশব্যাপী তৃণমূল পর্যায় থেকে শুরু হয় জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতা ২০১৮।

গত মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে টায় বাংলাদেশ শিশু একাডেমীর মিলনায়তনে  প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। অঞ্চল পর্যায় থেকে মোট ২লাখ ৬১ হাজার ৬৮৮ জন প্রতিযোগী প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহণ করে। প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী বিজয়ী শিশুদের মধ্যে ২৮টি বিষয়ে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অধিকারীদের যথাক্রমে স্বর্ণ ও রৌপ্যের মোট ২৩৭টি পদক এবং সনদপত্র প্রদান করা হয়। প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে শ্রেষ্ঠ স্থান অধিকার করেছে ঢাকা বিভাগের সমৃদ্ধা শামস ও রাজশাহী বিভাগের নাটোর জেলার মোছা. উজাইফা খাতুন।  অনুষ্ঠানে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি জনাব মোঃ আবদুল হামিদ প্রধান অতিথির আসন অলংকৃত করেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি এমপি ও সচিব নাছিমা বেগম এনডিসি। জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিশুদের মধ্যে থেকে অনুভূতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখে স্যুবাইয়্যা তাইয়্যবা ও মোহাম্মদ আবরার তাসিন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ শিশু একাডেমীর পরিচালক শিশুসাহিত্যিক আনজীর লিটন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ শিশু একাডেমীর চেয়ারম্যান কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন।

প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিশুদের উদ্দেশে প্রধান অতিথি বলেন, ‘নি:সন্দেহে আজ তোমাদের জন্য আনন্দের দিন। উৎসবের এ দিনে তোমাদের মাঝে উপস্থিত হতে পেরে আমি আত্যন্ত আনন্দিত। আজকের শিশুরাই নেতৃত্ব দেবে আগামীর বাংলাদেশ। তারাই এগিয়ে নিয়ে যাবে বাঙালি সংস্কৃতিকে। লালন করবে এ দেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস-ঐতিহ্য। জ্ঞান-বিজ্ঞান ও মুক্ত চিন্তা-চেতনায় সমৃদ্ধ হয়ে জন্মভূমির প্রতি থাকবে শ্রদ্ধাশীল। বাংলা ও বাঙালির মাতৃভাষা এবং মহান মুক্তিযুদ্ধের আদর্শে তোমরাই বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলবে।’- বিজ্ঞপ্তি