বুধবার ২৩ মে ২০১৮


জামালপুরে টাকা আত্মসাৎ ও শ্লীলতাহানির অভিযোগে মামলা


আমাদের অর্থনীতি :
17.05.2018

শরিফুল ইসলাম ঝোকন, জামালপুর:  জামালপুর জেলার ইসলামপুর উপজেলার পাথর্শী ইউনিয়নের মুখশিমলা গ্রামে মিনি গার্মেন্টস এর শেয়ার দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে মামা কর্তৃক ভাগ্নির ৮ লাখ টাকা, গার্মেন্টসের ৪ লাখ টাকার মেশিন আত্মসাৎ ও ভাগ্নিকে শ্লীলতাহানীর অভিযোগে আদালতে মামলা হয়েছে।

মামলা সুত্রে জানা যায়, গত  ২০১৭ সালের জুন মাসে মামলার বাদী শরিফা নাজনীন ও তার স্বামী ঢাকার গাজিপুরে একটি মিনি গার্মেন্টস চালু করার জন্য ৪ লাখ টাকার মেশিন কিনে প্রস্তুতি নেয়।

এক পর্যায়ে তার মামা শামসুল আলম নবাব নাজনিনকে জানায় যে, সে তাদের গ্রামের বাড়ি ইসলামপুরের মুখশিমলা বাজারে সুমিতা গার্মেন্টস নামে একটি মিনি গার্মেন্টস প্রতিষ্ঠা করার কাজ করছে। টাকার অভাবে মেশিন কিনতে পারছে না। যদি নাজনীন তার মেশিন ও ৮ লাখ টাকা দেয় তবে সে নাজনীনকে ঐ গার্মেন্টেসের অর্ধেক শেয়ার দিয়ে মালিকানা প্রদান করবে। নাজনীন সরল বিশ^াসে তার মামাকে ৮ লাখ টাকা ও ৪ লাখ টাকার মেশিন দিয়ে দেয়। কিছুদিন পরে নাজনীন তার শেয়ারের হিসাব চাইলে মামা শামসুল আলম নবাব তাকে হিসাব না দিয়ে তাকে মারধর করে মুখশিমলা বাজারের মিনি গার্মেন্টস থেকে বের করে দেয়। এই ঘটনার কয়েকদিন পর নাজনীন ইসলামপুর আসিলে আসামী শামসুল হক প্রধানের নির্দেশে তার চাচাতো ভাই আ: আজিজ নয়া নাজনীনকে শামসুল হক প্রধানের খামার বাড়িতে নিয়া যায়। সেখানে শামসুল আলম প্রধান তাকে মারধর করে এবং শ্লীলতাহানী ঘটায়। এ ঘটনায় নাজনীন তার মামা শামসুল হক প্রধানসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।