রবিবার ২৪ জুন ২০১৮
  • প্রচ্ছদ » মিনি কলাম » শেয়ারবাজারে সূচক নিম্নমুখী অব্যাহত হলেও ডিএসইর লেনদেন ৫০০ কোটি টাকা ছাড়িয়েছে


শেয়ারবাজারে সূচক নিম্নমুখী অব্যাহত হলেও ডিএসইর লেনদেন ৫০০ কোটি টাকা ছাড়িয়েছে


আমাদের অর্থনীতি :
30.05.2018

মাসুদ মিয়া : দেশের শেয়ারবাজার গতকাল মঙ্গলবার ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় মধ্যে দিয়ে লেনদেন শুরু হলেও শেষ আধঘণ্টায় একের পর এক আর্থিক খাতের প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম কমায় মূল্যসূচকের পতন হয়েছে। এই নিয়ে তিন কার্যদিবস ধরে শেয়ারবাজারে দরপতন অব্যাহত রয়েছে। গতকাল মূল্যসূচকের পাশাপাশি লেনদেন হওয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম আগের দিনের তুলনায় কমেছে তবে বেড়েছে লেনদেন। গতকাল ডিএসইর লেনদেন ৫০০ কোটি টাকা ছাড়িয়েছে। গতকাল দিনের শুরুতে দেখা দেয়া এ ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা প্রথম সাড়ে তিন ঘণ্টা অব্যাহত ছিল।

কিন্তু শেষ আধঘণ্টার লেনদেনে এসে একের পর এক আর্থিক খাতের প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম কমতে থাকে। দিনের লেনদেন শেষে ১৬টি আর্থিক প্রতিষ্ঠান দরপতনের তালিকায় নাম লেখায়। বিপরীতে দাম বাড়ে মাত্র ৫টির। আর্থিক খাতের এই নেতিবাচক প্রভাব অন্য খাতের কোম্পানিগুলোতেও পড়ে। ফলে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ১৫১টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম আগের দিনের তুলনায় কমে যায়। বিপরীতে দাম বাড়ে ১৩৮টির। আর দাম অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৫টির। গতকাল ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ৭ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ৪০৯ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দুটি মূল্যসূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ৫ পয়েন্ট কমে ২ হাজার ৬ পয়েন্টে অবস্থান করছে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ২৫৩ পয়েন্টে। তবে সূচওকর পতন হলেও এদিন বাজারটিতে লেনদেনের পরিমাণ কিছুটা বেড়েছে। ডিএসইতে আজ মোট ৫৬৪ কোটি ৩৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৪৩১ কোটি ৬৫ লাখ টাকার শেয়ার। সে হিসাবে আগের দিনের তুলনায় গতকাল ১৩২ কোটি ৭০ লাখ টাকার শেয়ার বেশি লেনদেন হয়েছে। টাকার অংকে ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকোর শেয়ার। গতকাল কোম্পানিটির মোট ৩১ কোটি ৫৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইন্ট্রাকো রিফুয়েলিংয়ের শেয়ার লেনদেন হয়েছে ২৮ কোটি ৫১ লাখ টাকার। আর ১৯ কোটি ৬৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে মুন্নু সিরামিক।

লেনদেনে এরপরে রয়েছে- নাহি অ্যালুমিনিয়াম, আলিফ ইন্ডাস্ট্রিজ, মিরাকেল ইন্ডাস্ট্রিজ, অ্যাডভেন্ট ফার্মা, আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক, বিএসআরএম এবং কুইন সাউথ টেক্সটাইল। অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্যসূচক সিএসসিএক্স ২২ পয়েন্ট কমে ১০ হাজার ১০৯ পয়েন্টে অবস্থান করছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ২০ কোটি ৭০ লাখ টাকার শেয়ার। লেনদেন হওয়া ২২৯টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৭৩টির শেয়ারের দাম বেড়েছে, বিপরীতে কমেছে ১২২টির। আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৪টির শেয়ারের দাম।